এক হয়ে যাচ্ছে এখানেই ডটকম এবং ওএলএক্স

ekhanei-olxদেশে যৌথভাবে কার্যক্রম শুরু করছে অন্যতম শীর্ষ দুই অনলাইন মার্কেটপ্লেস এখানেই ডটকম ও ওএলএক্স ডটকম ডটবিডি। অনলাইনভিত্তিক শ্রেণীবদ্ধ (ক্লাসিফাইড) বিজ্ঞাপনের সেবা আরো বিস্তৃত করতে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রতিষ্ঠান দুটি।

বিশ্বের ক্রমবর্ধমান বেশ কয়েকটি বাজারে এখানেই ডটকম এবং ওএলএক্সের মূল প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সম্পাদিত অংশীদারিত্ব চুক্তির অংশ হিসেবে এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

যৌথভাবে কার্যক্রম শুরু করা প্রতিষ্ঠানটি এখানেই ডটকম নামে সেবা দেবে।

এতে এখানেই ডটকমের মূল প্রতিষ্ঠান এসএনটির মালিকানা থাকছে ৫০.৩ শতাংশ এবং ওএলএক্সের মূল প্রতিষ্ঠান ন্যাসপার্স লিমিটেডের মালিকানা থাকছে ৪৯.৭ শতাংশ।

এসএনটিতে সমান অংশীদারিত্ব রয়েছে নরওয়েভিত্তিক আন্তর্জাতিক মিডিয়া গ্রুপ শিবস্টেড ও টেলিযোগাযোগ গ্রুপ টেলিনরের। এর মাধ্যমে গ্রাহকদের আরো উন্নত সেবা প্রদান সহজতর হবে বলে মনে করছে প্রতিষ্ঠানগুলো।

২০০৬ সালের মার্চে প্রতিষ্ঠিত ওএলএক্সের সেবা চালু রয়েছে বিশ্বের ১০৬টি দেশে ৪০টি ভাষায়। বাংলাদেশে গত বছর কার্যক্রম চালু করে প্রতিষ্ঠানটি।

এদিকে ২০০৬ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় মোবাইল কমার্সভিত্তিক ওয়েবসাইট সেলবাজার। ২০১০ সালে এটি অধিগ্রহণ করে টেলিনর। গত বছর এসএনটি গঠনের পর এতে শিবস্টেডেরও অংশীদারিত্ব প্রতিষ্ঠিত হয়। ২০১৪ সালে এখানেই ডটকম নামে নতুন করে যাত্রা করে দেশের অন্যতম জনপ্রিয় এ ই-কমার্স ওয়েবসাইট।

জানা গেছে, এখানেই ডটকম এবং ওএলএক্সের এ যৌথ উদ্যোগের মাধ্যমে আরো বড় পরিসরে এ ওয়েবসাইট ব্যবহারের সুযোগ তৈরি হবে। ফলে আরো বেশি সংখ্যক ক্রেতা-বিক্রেতার মেলবন্ধন ঘটবে।

ভিন্ন দুটি প্লাটফরমের বিদ্যমান ব্যবহারকারীদের বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে সব বিজ্ঞাপন একই জায়গায় প্রকাশের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। ফলে ওএলএক্স ব্যবহারকারীদের পুনরায় বিজ্ঞাপন প্রকাশ করার দরকার নেই। স্বয়ংক্রিয়ভাবে তা এখানেই ডটকমে চলে আসবে। আর আগের মতোই বিনামূল্যে বিজ্ঞাপন প্রকাশ করতে পারবেন সেবাগ্রহীতারা।

মানুষকে অনলাইনভিত্তিক বিজ্ঞাপনের সুবিধা পৌঁছে দিতে দুটি প্রতিষ্ঠানই যৌথভাবে পরিকল্পনা, অভিজ্ঞতা, বিনিয়োগ ও মুনাফা ভাগাভাগির ভিত্তিতে কার্যক্রম পরিচালনা করবে।

এ বিষয়ে এসএনটি বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আরিল ক্লোক্কেরহৌগ বলেন, ‘বাংলাদেশে ওএলএক্সের সঙ্গে যুক্ত হতে পেরে আমরা আনন্দিত। সব ক্রেতা-বিক্রেতাকে একটি মাত্র গন্তব্যে নিয়ে আসতে পেরে আমরা অত্যন্ত উত্সাহ বোধ করছি। এর মাধ্যমে বাংলাদেশের মানুষ আগের চেয়ে দ্রুত সহজে এবং বড় পরিসরে বেচাকেনা করতে পারবে।’

ওএলএক্স দক্ষিণ এশিয়ার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা অমরজিৎ সিং বাতরা বলেন, ‘ঐক্যবদ্ধ হয়ে আমরা দারুণ অর্জন নিশ্চিত করতে চাই। বেচাকেনায় যেন উভয় পক্ষই লাভবান হয়, সেজন্য আমরা ক্রেতা-বিক্রেতাকে সহযোগিতা করতে প্রতিজ্ঞ। বাংলাদেশের বাজারে অংশীদারত্বের এ উদ্যোগটি চমত্কার।’

ফেসবুক আইডি থেকে মন্তব্য করতে পারেন

টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

আপনি চাইলে এই এইচটিএমএল ট্যাগগুলোও ব্যবহার করতে পারেন: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>